CCL: ১৫ দিনের লম্বা ছুটি, তবে সবাই পাবেন না! দেখুন কীভাবে

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ ২ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার থেকে শুরু হয়ে গেছে এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা। তবে মাধ্যমিক পরীক্ষার ঠিক আগে পরীক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের জন্য সরকারের তরফ থেকে বিশেষ খুশির খবর জানানো হয়েছে। রাজ্য সরকারের  তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই বিশেষ ছুটির খবর। শিক্ষা ক্ষেত্রের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত কারণে টানা ১৫ দিন ছুটি দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে সরকারের তরফ থেকে।

ছুটিটি আসলে চাইল্ড কেয়ার লিভ। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য চাইল্ড কেয়ার লিভ হলো বিশেষ এক ধরণের ছুটির ব্যবস্থা। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারি বিভিন্ন ক্ষেত্রে কর্মরত মানুষদের সন্তানের শরীর খারাপ হলে বা তার দশম অথবা দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা অর্থাৎ বোর্ড পরীক্ষার ক্ষেত্রে অভিভাবক হিসেবে তারা ছুটি পান।

সরকারের তরফ থেকে এই ছুটির ব্যবস্থা করার বিশেষ উদ্দেশ্য হল সন্তানের অসুস্থতার সময় সন্তানের পাশে থেকে শুশ্রূষা করবে অথবা সন্তানের পরীক্ষার সময় পাশে থেকে তার মনবল বৃদ্ধি করবে এবং সন্তানকে তার পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সাহায্য করবে।

এতদিন পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক শিক্ষিকারা বোর্ড পরীক্ষার সময় এই ছুটি পেতেন না। রাজ্য সরকারি স্কুল বা সরকার পোষিত স্কুলের কোনো শিক্ষক বা শিক্ষিকার সন্তান বোর্ড পরীক্ষা দিলে, তিনি আবেদন করলেও চাইল্ড কেয়ার লিভের ছুটি পেতেন না। কারণ এই বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শিক্ষা দফতরের কড়া নির্দেশ ছিল। কারণ সংশ্লিষ্ট শিক্ষক বা শিক্ষিকাকে বোর্ড পরীক্ষায় পর্যবেক্ষকের ভূমিকাও পালন করতে হয়।

তবে পরীক্ষার সময় ছুটি না পাওয়া গেলেও সন্তান যদি ওই সময় অসুস্থ হয়ে পড়ত তাহলে ছুটি পাওয়া যেত। কিন্তু এই বছর থেকে সেই নিয়ম পরিবর্তন করছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শিক্ষা দপ্তর। হাই স্কুলের কোনো শিক্ষিকার সন্তান যদি মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিকের মত বোর্ড পরীক্ষায় বসে তবে পরীক্ষা চলা সত্ত্বেও ১৫ দিনের চাইল্ড কেয়ার লিভ পাবেন ওই শিক্ষিকা।

পড়ুনঃ  EWS: এই সার্টিফিকেট থাকলেই কেল্লাফতে! কীভাবে লাভ পাবেন, দেখুন

তাকে বোর্ড পরীক্ষায় আর পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পালন করতে হবে না সেই বছর। তবে চাইল্ড কেয়ার লিভের অধীনে টানা ১৫ দিনের এই বিশেষ ছুটির সুযোগ কেবলমাত্র শিক্ষিকাদেরই দেওয়া হচ্ছে। শিক্ষকরা এই সুযোগ পাবেন না। প্রচলিত সামাজিক ধারা অনুযায়ী বিশ্বাস করা হয় সন্তানের দেখভাল মায়েরাই সবচেয়ে ভাল করতে পারে। তাই এক্ষেত্রে শিক্ষিকা দের এই বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফ থেকে।

তবে রাজ্যের স্কুলগুলির প্রধান শিক্ষক ও সহকারি প্রধান শিক্ষকরা টানা ১৫ দিন ছুটির বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করেছেন। তাদের মতে বোর্ড পরীক্ষা শেষ হতে ১০ দিন সময় লাগে। তাই একটানা ১৫ দিন ছুটি দেওয়া অযৌক্তিক। এম আরও আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকুন। ধন্যবাদ।

আরও দেখুন,

১১ দিনের ছুটি থাকবে ব্যাঙ্কে! কোলকাতায় কবে কবে! দেখুন

WBnews24x7 Desk

“Wbnews247.com” সঠিক এবং নির্ভরযোগ্য বাংলা নিউজ প্লাটফর্ম। এখানে শিক্ষা, প্রকল্প, অর্থনীতি, টেক, সরকারি কর্মচারী, টেলিকম সম্পৃক্ত সকল জানা এবং অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। “Wbnews247” এর লক্ষ্য সবার মাঝে সঠিক তথ্য ছড়িয়ে দেয়া। যদি আপনি বিভিন্ন বিষয়ে সঠিক খবর বাংলায় পেতে চান তাহলে নিয়মিত চোখ রাখুন Wbnews247.com নিউজ পোর্টালে।

Leave a Comment

error: Content is protected !!