LPG e-KYC: এবারে আর দিতে হবে না লাইন, ঘরে বসেই হবে KYC! দেখুন

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে রান্নার কাজে ব্যবহৃত যে জ্বালানিটি বর্তমানে সব থেকে বেশি মানুষরা ব্যবহার করেন সেটি হল (LPG e-KYC) এলপিজি গ্যাস। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে এই এলপিজি গ্যাস সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল কিছুদিন আগে। সেই নির্দেশিকা অনুসারে বলা হয়েছিল ভর্তুকি যুক্ত রান্নার গ্যাসের গ্রাহকদের আধারের তথ্য যাচাইয়ের জন্য বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহ করতে হবে।

সেই বায়োমেট্রিক তথ্য, অর্থাৎ আঙুলের ছাপ, চোখের মণি এবং মুখবয়ব স্ক্যান ইত্যাদি দিতে গ্যাস গ্রাহকদের নিকটবর্তী গ্যাস সংস্থারঅফিসে যেতে হবে৷ প্রচুর সংখ্যক মানুষ গ্যাস ব্যবহার করার কারণে তারা প্রত্যেকেই যদি বায়োমেট্রিক তথ্য প্রদান করতে যান সেক্ষেত্রে পড়বে দীর্ঘ লাইন৷ এই সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে গ্রাহকরা নানা ধরনের বিভ্রান্তির সম্মুখীন হচ্ছেন। কারণ বিশেষ সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে একজন (LPG e-KYC) গ্যাস ডিলারের অধীনে প্রায় ২০ থেকে ৩০ হাজার গ্রাহক থাকে। সেক্ষেত্রে চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকেই। তবে এবার জানা যাচ্ছে গ্যাস গ্রাহকদের এই বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহের জন্য এক বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

LPG e-KYC will be done by this way

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে গ্রাহকদের গ্যাস সিলিন্ডার (LPG e-KYC) বাড়িতে পৌঁছে দিতে যাওয়ার সময়ে তাদের বাড়িতে বায়োমেট্রিক যাচাইয়ের যন্ত্র নিয়ে যাবেন গ্যাসের ডেলিভারি বয়রা। মোটামুটি ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ ডেলিভারি বয়ের কাছেই থাকবে এই যন্ত্র। ডেলিভারি বয়রা যদি বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই কাজটি সম্পন্ন করেন সে ক্ষেত্রে বায়োমেট্রিক যাচাইয়ের জন্য গ্রাহকদের আর দীর্ঘ লাইনে দাঁড়াতে হবে না।

অথচ কাজটিও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে বলেই মনে করছেন (LPG e-KYC) গ্যাস ডিলাররা। সম্প্রতি দেশের একটি নামজাদা তৈল সরবরাহকারী সংস্থার আধিকারিক নিজে এই বিষয়টি সম্পর্কে জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে তিনি আরো বলেছেন শুধুমাত্র রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি পাওয়ার জন্য যে আধার কার্ডটি ব্যবহৃত হয় সেই আধার কার্ডের বায়োমেট্রিক তথ্যই সংগ্রহ করা হবে। এর আগে একাধিক তৈল সরবরাহকারী সংস্থা ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এই কাজটি সম্পন্ন করে ফেলার কথা বললেও বর্তমানে এর শেষ সময়সীমা

আরও জানতে পড়ুন, পেঁয়াজের দাম শুনেই চোখে জল, ঝাঁঝে আরও বেশি,

প্রসঙ্গে বিশেষ কিছু উল্লেখ করা হয়নি। তবে (LPG e-KYC) গ্যাস ডিলারদের বক্তব্য অনুযায়ী বাড়ি বাড়ি গ্যাস ডেলিভারি দিতে যান এমন অনেক ডেলিভারি বয়রাই বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহ করার যন্ত্র ব্যবহার করার বিষয়ে সচ্ছন্দ্য নন। সে ক্ষেত্রে তাদের দিয়ে এই কাজটি করাতে গেলে আগে থেকে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা উচিত। যদিও প্রশিক্ষণ দেওয়া সম্পন্ন হলেও যে কাজটি ঠিকঠাক হবে সে নিয়ে গ্যাস ডিলারদের মনে নানারকম সংশয় সৃষ্টি হয়েছে।

পড়ুনঃ  Child Aadhaar: শিশুদের আধার কার্ড, সামনে এল নয়া তথ্য! দেখুন

অন্যদিকে গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন সংস্থার আধিকারিকরা বলছেন শহরে অনেক বিক্রেতারই মাথাপিছু গ্রাহক সংখ্যা ৩০ থেকে ৩৫ হাজার এবং গ্রামে অন্তত ১০ থেকে ১৫ হাজার। ফলে এত সংখ্যক গ্রাহকের বায়োমেট্রিক তথ্য যাচাই এর কাজটি ৩১ শে ডিসেম্বরের মধ্যে আদৌ করা সম্ভব কিনা তাই নিয়ে তৈরি হয়েছে অনেক প্রশ্নচিহ্ন।এছাড়াও এমন আরও অন্যান্য বিষয় যেমন দৈনিক খবর, প্রকল্প, ব্যবসা, অর্থনীতি, জীবন ধারা, টেক, শিক্ষা, সরকারি কর্মী ইত্যাদি নতুন নতুন আর গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকার অনুরোধ রইল। প্রয়োজনে, ডান দিকে থাকা বাটনে ক্লিক করে যুক্ত হন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রুপে। ধন্যবাদ।
Written by Priya Biswas.

WBnews24x7 Desk

“Wbnews247.com” সঠিক এবং নির্ভরযোগ্য বাংলা নিউজ প্লাটফর্ম। এখানে শিক্ষা, প্রকল্প, অর্থনীতি, টেক, সরকারি কর্মচারী, টেলিকম সম্পৃক্ত সকল জানা এবং অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। “Wbnews247” এর লক্ষ্য সবার মাঝে সঠিক তথ্য ছড়িয়ে দেয়া। যদি আপনি বিভিন্ন বিষয়ে সঠিক খবর বাংলায় পেতে চান তাহলে নিয়মিত চোখ রাখুন Wbnews247.com নিউজ পোর্টালে।

Leave a Comment

error: Content is protected !!