NPS নতুন নিয়ম : প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা ট্রান্সফার করা আরও সহজ, জানুন বিস্তারিত

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

NPS নতুন নিয়ম : ১ এপ্রিল থেকে পরিবর্তিত হয়ে গেল পিএফ (PPF) ও এনপিএসের (NPS) কয়েকটি নিয়ম! দুই পরিষেবা এবার হবে আরো বেশি সুরক্ষিত।

গত ১ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে নতুন অর্থবর্ষ অর্থাৎ ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষ। সাধারণত প্রতিবছর নতুন অর্থবর্ষের শুরু থেকে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলিতে নানা ধরনের নিয়মকানুন চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সরকারি সূত্র মারফত আগেই জানানো হয়েছিল ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষ থেকে প্রভিডেন্ট ফান্ড ও এনপিএস-এর ক্ষেত্রে বেশ কিছু পরিবর্তন আসতে চলেছে।

সরকারি সেই নির্দেশ অনুসারে ১ এপ্রিল থেকে গ্রাহকদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে এই দুই ক্ষেত্রে বেশ কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসা হয়েছে। এই দুই ক্ষেত্রে নতুন ব্যবস্থার ফলে গ্রাহকদের জন্য প্রদান করা পরিষেবা আগের থেকে অনেক বেশি সুরক্ষিত ও মসৃণ হবে।

প্রভিডেন্ট ফান্ড বা পিএফ এর ক্ষেত্রে বলা হয়েছে কোনো চাকরিজীবী তার কর্মক্ষেত্র পরিবর্তন করলে তার আগের কর্মক্ষেত্রের পিএফ এবং পেনশন অ্যাকাউন্টে জমা টাকা নতুন সংস্থায় ট্রান্সফার করার ক্ষেত্রে বেশ কিছু সুবিধা পাওয়া যাবে। এতদিন পর্যন্ত দেশ জুড়ে জারি থাকা পুরনো নিয়ম অনুসারে কর্মক্ষেত্র পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে সেই ব্যক্তিকে পিএফ এবং পেনশন তহবিলের টাকা নতুন সংস্থায় ট্রান্সফার করতে গেলে বেশ কয়েকটি পদ্ধতি অবলম্বন করতে হতো।

এর জন্য সেই চাকরিজীবী ব্যক্তিকে প্রথমে ১৩ নম্বর ফর্ম পূরণ করে দুটির জন্য আলাদা ভাবে আবেদন করতে হত। নিজস্ব ইউএএন থাকলেও পিএফ এবং পেনশন তহবিলের টাকা নতুন সংস্থায় ট্রান্সফার করার জন্য বহু নিয়ম কানুন সংক্রান্ত ঝামেলায় পড়তে হতো সেই ব্যক্তিকে।

নতুন অর্থবর্ষের নতুন নিয়ম অনুসারে কর্মস্থান পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে এ ধরনের আবেদন আর জানাতে হবে না। কোনো রকম বাড়তি ঝামেলা ছাড়াই শুধুমাত্র অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে আবেদন জানিয়ে পিএফ এবং পেনশন তহবিলের টাকা অতি দ্রুত পুরনো কর্মক্ষেত্র থেকে নতুন সংস্থায় সরিয়ে ফেলতে পারবেন চাকরিজীবী ব্যক্তিরা। অতিরিক্ত কেন্দ্রীয় পিএফ কমিশনার রাজীব ভট্টাচার্য এ প্রসঙ্গে বলেছেন নতুন এই ব্যবস্থার মাধ্যমে চাকরির স্থান পরিবর্তনকারী ব্যক্তির পিএফ ও পেনশন সংক্রান্ত সমস্যা গুলি মিটিয়ে নেওয়া আরো সহজ সরল হবে।

পড়ুনঃ  Business Tips: ব্যবসা শুরু করার আগে দেখুন বিশেষ কিছু টিপস!

ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম বা এনপিএস এর ক্ষেত্রে ১ এপ্রিল থেকে গ্রাহকদের সুরক্ষা ব্যবস্থাকে আরো সুনিশ্চিত করা হচ্ছে। গ্রাহকদের সুরক্ষা ব্যবস্থাকে সুনিশ্চিত করতেই এক্ষেত্রে টু ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। আগে গ্রাহকরা তাদের ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে এনপিএস অ্যাকাউন্টটি খুলতে পারলেও নতুন নিয়ম অনুসারে এবার থেকে প্রয়োজন হবে গ্রাহকের আধার নম্বর।

প্রধান পয়েন্টগুলি : NPS নতুন নিয়ম

  • নতুন পদ্ধতি: চাকরি পরিবর্তন করলে পিএফ ও পেনশন তহবিলের টাকা অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে সহজেই নতুন সংস্থায় ট্রান্সফার করা যাবে।
  • সুবিধা:
    • আবেদনের ঝামেলা কমে যাবে।
    • দ্রুত টাকা ট্রান্সফার করা সম্ভব হবে।
  • নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থা: এনপিএস অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য আধার নম্বর এবং ওটিপি ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
  • সুবিধা:
    • গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট আরও সুরক্ষিত হবে।
    • প্রতারণা রোধে সাহায্য করবে।

অতিরিক্ত তথ্য:

  • এই নিয়মগুলি ১ এপ্রিল ২০২৪ থেকে কার্যকর হয়েছে।
  • টু ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশন ব্যবস্থাটি এনপিএস ট্রাস্টি বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অতনু সেনের পরামর্শে চালু করা হয়েছে।
  • অতিরিক্ত কেন্দ্রীয় পিএফ কমিশনার রাজীব ভট্টাচার্য নতুন নিয়মগুলিকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং বলেছেন যে এটি চাকরি পরিবর্তনকারী ব্যক্তিদের জন্য পিএফ ও পেনশন সংক্রান্ত সমস্যাগুলি মিটিয়ে নেওয়া আরও সহজ করে তুলবে।

আধার নম্বর নির্দিষ্ট স্থানে বসিয়ে দেওয়ার পর বৈধ মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি আসবে। সেই ওটিপি সঠিকভাবে দিলেই এনপিএস অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন গ্রাহক। এনপিএস ট্রাস্টি বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অতনু সেন জানিয়েছেন এই টু ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশন ব্যবস্থা গ্রাহকদের এনপিএস অ্যাকাউন্টকে আরো বেশি সুরক্ষিত করবে। এর ফলে যে কোন ধরনের প্রতারণার হাত থেকেও মুক্তি পাবেন গ্রাহকরা।

Gupta Ajay

নমস্কার, আমি অজয় গুপ্ত। আমি একজন কনটেন্ট রাইটার। বিগত ৫ বছর ধরে টেক, ব্যবসা, অনলাইন ইনকাম, লাইফস্টাইল ইত্যাদি বিষয়ে লেখালিখি করছি। লেখা নিয়ে কোন মতামত থাকলে কমেন্টে জানাতে পারেন। Ajay Gupta Senior Content Writter

Leave a Comment

error: Content is protected !!