PM Mandhan Scheme: নতুন বছরে এই প্রকল্পে ৩ হাজার টাকা দিচ্ছে কেন্দ্র! আবেদন প্রক্রিয়া চলছে

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া দেশের সাধারণ মানুষকে আর্থিক সুযোগ-সুবিধা প্রদান করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিভিন্ন প্রকল্প (PM Mandhan Scheme) চালু করেছেন। তার চালু করা বিভিন্ন প্রকল্প গুলির মধ্যে অন্যতম একটি হলো প্রধানমন্ত্রী মানধন যোজনা। শ্রমিক, কৃষক থেকে শুরু করে অন্যান্য আরও পেশার মানুষ পাবেন এই সুবিধা। কীভাবে কি করবেন, দেখে নিন আজকের এই প্রতিবেদনে।

এই প্রধানমন্ত্রী মানধন যোজনার (PM Mandhan Scheme) মাধ্যমে এককালীন ৩৬ হাজার টাকা পাওয়া সম্ভব। এই যোজনার মাধ্যমে মাসে মাত্র ২০০ টাকা বিনিয়োগ করে বছরে ৩৬০০০ টাকা। তবে এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য আবেদনকারীকে অবশ্যই অসংগঠিত শ্রেণীর শ্রমিক হতে হবে। সেই সঙ্গে আবেদনকারীর বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। এই প্রকল্পের জন্য যে ব্যক্তি আবেদন করবেন তার মাসিক আয় অবশ্যই ১৫০০০ টাকার থেকে কম হতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী পরিচালিত এই যোজনায় (PM Mandhan Scheme) অর্থ বিনিয়োগ করলে ৬০ বছর বয়স হওয়ার পর মাসিক ৩০০০ টাকা করে পেনশনের সুবিধা লাভ করতে পারবেন অসংগঠিত সংস্থার কর্মীরা। কোনো কারনে যদি বিনিয়োগকারী ব্যক্তির মৃত্যু হয় সে ক্ষেত্রে তার জীবনসঙ্গী বা নমিনিকে ৫০ শতাংশ টাকা দেওয়া হবে। যদি কোন অর্থ বিনিয়োগকারী তার ৪০ বছর বয়সে অথবা নিয়োগ করা শুরু করেন সে ক্ষেত্রে তাকে এই প্রকল্পে প্রতি মাসে ২০০ টাকা করে বিনিয়োগ করে যেতে হবে।

৬০ বছর পর্যন্ত এই নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করে গেলে পেনশন বাবদ বছরে ৩০০০ টাকা অর্থাৎ বছরে ৩৬ হাজার টাকা লাভ করবেন তিনি। এক্ষেত্রে মাথায় রাখা প্রয়োজন সংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মী বা EPF, NPS, ESIC র সদস্য হলে এখানে আবেদন করা যাবে না। এছাড়াও যেসব ব্যক্তিরা একর প্রদান করে তারা এই প্রকল্পের আবেদনযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন না।

পড়ুনঃ  Atal Pension Yojana: কেন্দ্রের পেনশন প্রকল্প, দেশের জনগণের জন্য নয়া সুবিধা! দেখুন

প্রধানমন্ত্রী শ্রম যোগী মান-ধন হল একটি পেনশন প্রকল্প যার লক্ষ্য ভারতের অসংগঠিত কর্মক্ষেত্র এবং বয়স্কদের আর্থিক নিরাপত্তা প্রদান করা। একটি রিপোর্ট অনুসারে, ভারতে আনুমানিক ৪২ কোটি অসংগঠিত শ্রমিক রয়েছে। এই স্কিমের লক্ষ্য হল যে সুবিধাভোগী টাকা পাবেন৷ ৬০ বছর বয়সের পর প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা। এছাড়াও, পেনশনের ৫০% সুবিধাভোগীর মৃত্যুর পরে পরিবার পেনশন হিসাবে সুবিধাভোগীর পত্নীকে দেওয়া হবে।

স্কিমটি সাহায্য করার জন্যও লক্ষ্য করে:
রাস্তায় বিক্রেতারা,
রিকশা চালকরা,
কৃষি শ্রমিক,
মিড-ডে মিল কর্মীরা,
নির্মাণ শ্রমিকগণ,
হেড লোডার,
ইট ভাটা শ্রমিক,
মুচি,
বিড়ি শ্রমিক,
তাঁত শ্রমিক,
চামড়ার শ্রমিক এবং অসংগঠিত ক্ষেত্রের অন্যরা।

স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে নয়া সিদ্ধান্ত!জেনে রাখুন

PM Mandhan Scheme

WBnews24x7 Desk

“Wbnews247.com” সঠিক এবং নির্ভরযোগ্য বাংলা নিউজ প্লাটফর্ম। এখানে শিক্ষা, প্রকল্প, অর্থনীতি, টেক, সরকারি কর্মচারী, টেলিকম সম্পৃক্ত সকল জানা এবং অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। “Wbnews247” এর লক্ষ্য সবার মাঝে সঠিক তথ্য ছড়িয়ে দেয়া। যদি আপনি বিভিন্ন বিষয়ে সঠিক খবর বাংলায় পেতে চান তাহলে নিয়মিত চোখ রাখুন Wbnews247.com নিউজ পোর্টালে।

Leave a Comment

error: Content is protected !!